নোটিশ লেখার নিয়ম ও নমুনা ২০২২ (pdf সহ)

বিভিন্ন প্রয়োজনে আগাম অবগতির জন্য প্রাতিষ্ঠানিক পরিবেশে নোটিশ পাঠানোর রীতি আছে।সুতরাং,তথ্য সম্পর্কে অবগত করার জন্য নোটিশ লেখার সঠিক নিয়ম জানা থাকা আবশ্যক।সঠিক নিয়মে নোটিশ লেখার মাধ্যমে অনাকাঙ্ক্ষিত ঝামেলা এড়ানো সম্ভব।নোটিশ সঠিক নিয়মে লেখার মাধ্যমে নির্ভূল তথ্য প্রবাহ নিশ্চিত করা যাবে কোন বিভ্রাট ছাড়া।

নিম্নে দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনীয় কিছু নোটিশের নমুনা তুলে ধরা হলো।এ থেকে আপনারা নোটিশ লেখার নিয়ম সম্পর্কে সম্যক ধারনা পাবেন।

নোটিশ কি?

নোটিশ(notice)শব্দটি একটি ইংরেজি শব্দ।যার বাংলা আভিধানিক অর্থ হলো বিজ্ঞাপন বা বিজ্ঞপ্তি।তথাপি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেক ক্ষেত্রেই নোটিশ শব্দটিকে ঘোষণার সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করা হয়।ব্যবহারিক অর্থে নোটিশ অর্থ সতর্কীকরণ ও হয়ে দাঁড়ায়।

মিটিং বা সভার নোটিশ লেখার নিয়ম

কোন সংগঠন বা প্রতিষ্ঠানে কোন অনুষ্ঠান বা সভার আয়োজন করা হলে,সেই প্রতিষ্ঠানের সাথে সংশ্লিষ্ট সদস্যদের সভার ব্যাপারে অবগত করার জন্য মূলত সভার নোটিশ লেখা হয়ে থাকে।

  • সভার নোটিশে অবশ্যই তারিখ উল্লেখ থাকতে হবে
  • সভার উদ্দেশ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানাদির সম্পর্কে উল্লেখ থাকতে হবে।
  • নিম্নে মিটিং বা সভার নোটিশ লেখার নমুনা তুলে ধরা হলোঃ

মিটিং বা সভার নোটিশ লেখার নমুনা

এতদ্বারা আলোকচ্ছটা সংঘের রংপুর শাখার সকল সদস্যদের অবগতীর জন্য জানানো যাইতেছে যে, আগামী ১৪/১২/২০২২ ইং তারিখে সংগঠনের বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত হবে ।

উক্ত সাধারন সভায় সংঘের সকল সদস্যদের কে উপস্থিত থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো ।এবং সুষ্ঠু ভাবে সভার আয়োজনের জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

অনুষ্ঠানসূচিঃ

  • উদ্ভধনি বক্তব্য
  • কোরআন তেলায়ত
  • গত এক বছরের বার্ষিক কার্যবিবরণী উপস্থাপন।
  • উত্থাপিত এক বছরের কার্যবিবরণী এবং ব্যয়ের প্রতিবেদন অনুমোদন।
  • গত এক বছরের আয়-ব্যয়ের নিরীক্ষা প্রতিবেদন উপস্থাপন।
  • বার্ষিক কার্যবিবরণী এবং আর্থিক প্রতিবেদনের উপর সম্মানিত সদস্যদের পক্ষ থেকে আলোচনা।
  • ২০২২ সালের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন
  • বিবিধি আলোচনা
  • সভাপতির বক্তব্য
  • দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে সভার সমাপ্তি।

আহব্বানে
মোঃ নাফিউজ্জামান
সেক্রেটারি জেনারেল
আলোকচ্ছটা ( রংপুর সদর , রংপুর । )

কারন র্দশানোর নোটিশ লেখার নিয়ম

  • নোটিশ গ্রহীতার সুস্পষ্ট পরিচয়।
  • যে কারণে নোটিশ প্রদান করা হচ্ছে তার পরিষ্কার বিবরণ ও সময়ের উল্লেখ।
  • নোটিশ গ্রহনের পর তার প্রতিকারের জন্য সুনির্দিষ্ট সময়ের উল্লেখ
  • নোটিশ গ্রহনের পর ও উক্ত দিক উন্নয়েব প্রতি অনাগ্রহী না হলে প্রেরণকারীর পক্ষ থেকে ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা।

কারন দর্শানোর নোটিশ কেন লিখতে হয় ?

কারন দর্শানোর নোটিশের প্রয়োজনীয়তা বলে আসলে শেষ করা যাবে না । একটি প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ ঠিক রাখতে কারন ও যেকোন ঘটনা বিশ্লেষণের জন্য কারণ দর্শানো নোটিশের বিকল্প নেই । শৃঙখলা বজায় রাখার নিমিত্তে এহেন নোটিশ প্রদান করা হয়ে থাকে।এইচ আর ডিপার্টমেন্টে যারা জব করেন তারাই বোঝেন এই নোটিশ কতটা গুরুত্বপূর্ণ । প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মচারীদের বিভিন্ন অপরাধ মুলক কর্মকান্ডের চুড়ান্ত নিষ্পত্তি হয় এই কারন দর্শানোর নোটিশের মাধ্যমে।যারা এইচআর বিভাগে চাকরি করেন কিন্তু কারন দর্শানোর নোটিশ লেখার সঠিক নিয়ম জানেন না আবার ভবিষ্যতে যারা এইচআর এন্ড কমপ্লাইন্স বিভাগে চাকরি নেবার জন্য চিন্তা করতেছেন তাদের জন্য এই নোটিশ লেখার নিয়ম জানাটা খুব ই গুরুত্বপূর্ণ ।

কারন দর্শানোর নোটিশ লেখার নমুনা

তারিখঃ১২-০৪-২২
প্রাপকঃ নাফিউজ্জামান
প্রদবীঃ ফিল্ড অর্গানাইজার
বিষয়ঃঋণ গ্রহীতাদের নিকট হতে সংগৃহীত কিস্তির টাকার ঘাটতি প্রসঙ্গে

জনাব,
আপনার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে,গত ২৫-০৩-২২ তারিখে মাঠ কর্মদিবসের পর অফিসে জমাকৃত টাকার পরিমাণ নির্ধারিত পরিমাণের চেয়ে ৯৭৩৮ টাকা কম ছিলো এবং বিগত দু’মাসেও এ ধরণের ঘাটতি অনিয়মিত ভাবে ঘটেছে।

আপনাকে বিষয়টি জানানোর পর ও,আপনি এই বিষয়ে কোন ব্যখ্যা বা এই সমস্যার কোন সঠিক সমাধানের ব্যাপারে কোন সাড়া প্রদান করেন নি। যার কারনে প্রায় ৪৫৬৭২ টাকার অর্থসংকটে রয়েছে আমাদের সমবায় এবং ঋণ প্রদান প্রক্রিয়া ও যথেষ্ট ব্যহত হচ্ছে।

আপনার মত একজন দায়িত্বশীল মাঠকর্মীর কাছ থেকে এহেন আচরণ আশা করা যায় না । আপনার এহেন কর্মকান্ড বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ অনুসারে, কর্তব্য অবহেলার শামিল । এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ ।

সুতারাং আপনার এমন কর্মকান্ডের জন্য কেন আপনার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যাবস্থা নেওয়া হবে না তা অত্র পত্র পাবার ১০ কর্মদিবসের মধ্যে নিম্ন স্বাক্ষরকারী বরাবর কারন দর্শানোর জবাব দিতে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে ।

আপনার লিখিত জবাব যদি১০ কর্মদিবসের মধ্যে নিম্ন স্বাক্ষরকারী বরাবর না পৌঁছে । তবে কর্তপক্ষ ধরে নেবো আপনি উপরে উল্লেখিত দোষে দোষী । এবং আপনার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্যি এই নিমিত্তে আইনানুগ শাস্তি মুলক ব্যাবস্থা নেবে কর্তপক্ষ ।বিষয়টি আপনাকে বিশেষভাবে অবহিত করা হলো ।

পল্লী ও দারিদ্র‍্য বিমোচন সমবায় সমিতি
মোঃমাহমুদুর রহমান
এরিয়া ম্যানেজার,রংপুর শাখা
অনুলিপিঃ
১। চেয়ারম্যান
২। ব্যাবস্থাপনা পরিচালক
৩। ব্যাক্তিগত নথি ।

কারন দর্শানোর নোটিশের জবাব লেখার নিয়ম

কোন কারনে কারণ দর্শানোর নোটিশ পেলে,তার উত্তরে আমরা কিভাবে গুছিয়ে নিজের কথা বলবো তা জানা অত্যন্ত গুরুত্ব পূর্ণ বিষয়। তাই এখানে,কারন দর্শানোর নোটিশের জবাব লেখার নিয়ম ও তুলে ধরছি।এক্ষেত্রে যেসব বিষয় খেয়াল রাখতে হবে-

প্রাপ্ত নোটিশে উল্লেখিত কারণের সুস্পষ্ট ব্যখ্যা ও তার প্রতিকারের জন্য গৃহীত ব্যবস্থা সম্পর্কে অবহিত করা।

কারন দর্শানোর নোটিশের জবাব লেখার নমুনা

বরাবর
প্রকল্প ম্যানেজার
পল্লী উন্নয়ন ও দারিদ্র‍্য বিমোচন সমবায়
রংপুর শাখা,রংপুর
বিষয়ঃ কারন দর্শানোর নোটিশের জবাব প্রসঙ্গে ।

জনাব,
সবিনয় নিবেদন এই যে আমি নাফিউজ্জামান সুদীর্ঘ সময় ধরে পল্লী উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচন সমবায় প্রকল্পে মাঠকর্মী হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছি

সম্প্রতি আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ এই যে, গত ২৫ মার্চ,২০২২ ইং এ মাঠ দিবসের পর সংগ্রহকৃত টাকার পরিমাণ স্বাভাবিক দিবসের চেয়ে কম হয়েছে।

তবে উল্লেখিত বিষয় হলো,ওই দিন কিস্তি সংগ্রহের এক পর্যায়ে আমি শারীরিক দূর্বলতা জনিত কারণে ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়ি।আমি তৎক্ষণাৎ তাই মাঠ ত্যাগ করে বাকি কর্মদিবস কার্যালয়ে এসে অফিশিয়াল কাজে নিযুক্ত থাকি।যার দরুণ,আমি নির্ধারিত পরিমাণ টাকা সংগ্রহ ও জমা দিতে ব্যর্থ হই।এজন্য সৃষ্ট জটিলতার জন্য আমি আন্তরিক ভাবে ক্ষমাপ্রার্থী।আমার স্বাস্থ্যগত বিষয় বিবেচনা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আমাকে ৭ দিনের কর্মবিরতি দিবস প্রদান করে।ছুটি শেষে নিয়মিত ভাবে কাজে বহাল হবার সুযোগ পেলে আমার সৃষ্ট জটিলতা নিরসনে আমার অসম্পূর্ণ কিস্তি সংগ্রহের কাজটি সম্পূর্ণ করবো।

অতএব, জনাবের নিকট আমার অকুল আবেদন এই যে , আমার সম্পুর্ন বিষয়টি পূর্নবিবেচনা করে ক্ষমা সুন্দর সিদ্ধান্ত নেয়ার আবেদন জানাচ্ছি।

নিবেদক
নাম নাফিউজ্জামান
মাঠ কর্মী
পল্লী উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচন সমবায় রংপুর।
তারিখঃ ১৬/০৪/২০২২ইং

সতর্কীকরণ নোটিশ লেখার নিয়ম

অনেক সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সদস্যদের মধ্যে নিয়ম অমান্য করার ধারাবাহিক প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়।এমন সময় কাজের সুষ্ঠু পরিবেশ ও উন্নতি বজায় রাখার জন্য অপরাধী ব্যক্তিকে তার অপরাধ শোধরানোর জন্য সতর্কীকরণ নোটিশ প্রদান করা হয়।যাতে সে নিজের ভুল বুঝে,সকলের সাথে সহযোগীতামূলক আচরণ করার সুযোগ পায়।

  • অভিযোগের সুস্পষ্ট বর্ণনা
  • প্রতিকারের জন্য নির্ধারিত সময় স্পষ্ট করে উল্লেখ করা
  • সতর্কীকরণ নোটিশ পৌঁছানোর পরেও প্রতিকারের পদক্ষেপ না নেয়া হলে সম্ভাব্য গৃহীত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা সম্পর্কে অবহিত করা।

সতর্কীকরণ নোটিশ লেখার নমুনা

প্রাপক
মো: সোলাইমান শুখন
ম্যানেজার, ক্লাইন্ট ম্যানেজমেন্ট
বিষয় : সতর্কীকরণ প্রসংঙ্গে।

জনাব,
আপনার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ইলেকট্রনিক যন্ত্রের যন্ত্রাংশ সরিয়ে ফেলা বিষয়ক আনিত অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৫/০৫/২০২১ ইং তারিখে কারণ দর্শানো নোটিশ প্রেরণ করা হয় যাহার লিখিত জবাব ০১/০৬/২০২১ ইং তারিখে জমা দেন। উক্ত জবাবের মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে যে আপনি আপনার ভুল বুঝতে পেরেছেন এবং আপনি আত্মপক্ষ সমর্থন করেছেন। সুতরাং কর্তৃপক্ষ চাইলেই আপনার বিরুদ্ধে কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারতেন কিন্তু সেটা না করে ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এ ধরনের কাজের পূনরায় না করার জন্য আপনাকে সর্তক করে দিচ্ছে।আশা করা যায়,আপনি এই ক্ষমাসুলভ আচরণের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবেন।সেই সাথে আপনাকে জানানো যাচ্ছে যে, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত আপনার বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি এবং পদোন্নতি বন্ধ থাকবে। আপনার দায়িত্ব ও কর্তব্য ২ মাস নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষন করা হবে। ২ মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ যদি আপনার দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে সন্তুষ্ট না হন তাহলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে আপনার পরিবর্তে উপযুক্ত প্রার্থী নিয়োগ করতে বাধ্য হবেন।

কর্তৃপক্ষ আশা করে এ সর্তকবাণী আপনাকে কাজে মনোযোগী ও দায়িত্ববান এবং কোম্পানীর নিয়ম শৃংখলা মেনে চলতে সাহায্য করবে এবং ভবিষ্যতে আপনি আপনার কর্মদক্ষতা প্রমাণ করতে সক্ষম হবেন।

উকিল নোটিশ লেখার নিয়ম

উকিল নোটিশ লেখার নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করার পূর্বে,আসুন জেনে নিই,উকিল নোটিশ কি?

উকিল নোটিশ কি?

সাধারণত মামলা দায়ের করা হলে, মমলা শুরুর পূর্বে বাদীপক্ষ থেকে আইনজীবি মারফত অপর পক্ষকে অবহিত করার জন্য উকিল নোটিশ বা লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়ে থাকে।যেকোন মামলা শুরুর পূর্বে উকিল নোটিশ প্রদান করা আবশ্যক।উকিল নোটিশে নির্দিষ্ট সময় উল্লেখপূর্বক বলা হয় উল্লেখিত সময়ের মধ্যে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে,তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। উকিল নোটিশ মূলত সরকারি ডাক যোগাযোগ ব্যবস্থার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রতিপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হয়।উকিল নোটিশে উল্লেখিত সময় কতোদিন হতে পারে তার সুনির্দিষ্ট কোন উল্লেখ নেই।তবে সরকারি ক্ষেত্রে এটি একমাস।এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে ২৪ ঘন্টা থেকে একমাসের মধ্যে।

মামলা দায়ের

উকিল নোটিশ পাঠানোর পরে উল্লেখিত মেয়াদের মধ্যে প্রতিপক্ষ হতে যদি সঠিক জবাব ও প্রতিকার না মেলে তবে,নোটিশ প্রেরণকারী আইনজীবীর মাধ্যমে বাদীপক্ষ মামলা দায়ের করতে পারবেন।মামলা দায়েরের ক্ষেত্রে আইনজীবিকে ফি পরিশোধ করতে হয়।বলে রাখা ভালো উল্লেখিত মেয়াদের পূর্বে মামলা দায়ের করা যাবেনা।

মামলা দায়ের করার জন্য আইনজীবির সাথে যোগাযোগ

মামলা দায়ের করার জন্য হাইকোর্টের নিবন্ধনযুক্ত আইনজীবীর সাথে যোগাযোগ করতে হয়।জেলা জজ আদালতের ক্ষেত্রে উক্ত আদালতে মামলা পরিচালনা করেন এমন আইনজীবী নিযুক্ত করতে হয়।

উকিল নোটিশ সংক্রান্ত খরচ

উকিল নোটিশ সংক্রান্ত খরচ বলতে মূলত আইনজীবির ফি এবং কোর্ট ফি কে বোঝানো হয়ে থাকে।

উকিল নোটিশ লেখার নমুনা

“আইনগত বিজ্ঞপ্তি”
প্রাপকঃ আব্দুর হাই
পিতা-রহমত আলী।গ্রামঃসুন্দরগঞ্জ,গাইবান্ধা
প্রেরকঃ মোঃসিদ্দিকুর রহমান
পিতাঃআবদুল কাশেম
মিঠাপুকুর,রংপুর
এর পক্ষেঃ
মোঃগোলাম মোস্তফা
এডভোকেট
জেলা ও দায়রা জজ আদালত,রংপুর

জনাব
আমি আমার মক্কেল নোটিশ দাতা কর্তৃক অনুরুদ্ধ ও নিয়োজিত হয়ে আপনার অবগতির জন্য এই মর্মে নোটিশ প্রদান করিতেছি যে,

আপনি আমার মক্কেলের নিকট সুনামগঞ্জস্থ বড়বআজার সংলগ্ন এলাকায় ৪০০০০০০ টাকার বিনিময়ে ২০ শতক জমি বিক্রি করিতে সম্মত হইয়াছেন।

এরই ধারাবাহিকতায়,আপনি চুক্তিবদ্ধ টাকার ২০% অগ্রীম হিসেবে দাবী করেন।এবং আমার মক্কেল জমি রেজিস্ট্রেসনের সময় আপনাকে সেই টাকা প্রদাণ করে বাকি টাকা দেবার জন্য কিছু সময় চেয়ে নেয়।কিন্তু কিছুদিন পরেই কাগজপত্রের জালিয়াতিসহ জমি সংক্রান্ত নানা জটিলতা শুরু হয়।এর ই ধারাবাহিকতায় আপনার আত্মসাৎ কৃত টাকা উদ্ধার করার নিমিত্তে আমি আমার মক্কেলের তরফ হইতে লিগ্যাল নোটিশ প্রেরণ করছি।উক্ত বিষয়ে আপনি যদি ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে টাকা ফেরত দেয়া সংক্রান্ত কোন পদক্ষেপ এবং প্রতিকারের ব্যবস্থা না করেন,তবে আপনার বিরুদ্ধে এন. আই এক্টের ১৩৮ ধারা অনুসারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের মতো কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে আমার মক্কেল বাধ্য হবেন।

বিঃদ্রঃভবিষ্যৎ কার্যার্থে লিগ্যাল নোটিশটির এক কপি আমার নিকট সংরক্ষিত থাকিবে।

ধন্যবাদান্তে-
মোঃগোলাম মোস্তফা
এডভোকেট
জেলা ও দায়রা জজ,রংপুর।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাধারণ নোটিশ লেখার নমুনা

তারিখঃ১২-০৪-২২
“বিশেষ বিজ্ঞপ্তি”

এতদ্বারা অত্র বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীর অবগতির জন্য জানানো যাইতছে যে,আসন্ন ২২-০৪-২২ ইং তারিখ,রোজ বুধবার অত্র বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা-২০২২ এর চূড়ান্ত রাউন্ড অনুষ্ঠিত হবে।এবং ১৪-০৪-২০২২ থেকে চতুর্থ ঘন্টার পর বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন সংলগ্ন মাঠে শিক্ষকগণ বিভিন্ন ইভেন্টে প্রাথমিক পর্যায়ের যাচাই বাছাই করবেন।যেকোন শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ তিনটি ইভেন্টে বিজয়ীর পুরুষ্কার পাবে।সকলকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহনের আহবান জানানো যাচ্ছে।

প্রধান শিক্ষক
রাশেদা পারভীন
রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়
রংপুর।

নোটিশের সাধারন বৈশিষ্ট্য সমূহ

  • নোটিশ গ্রহনকারী ব্যক্তির সুস্পষ্ট পরিচয় উল্লেখ
  • বিষয় বস্তুর পরিষ্কার বর্ণনা
  • কারণ দর্শানো,লিগ্যাল প্রভৃতি নোটিশের ক্ষেত্রে মেয়াদের স্পষ্ট উল্লেখ
  • উক্ত মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে গৃহীত শাস্তিমূলক পদক্ষেপের বিষয়ে উল্লেখ করা
  • নোটিশের ভাষাশৈলী সহজ সাবলীল হওয়

উপসংহার

নোটিশ যেহেতু আমাদের যাপিত জীবনে প্রয়োজনীয়,তাই বেশী ব্যবহৃত বিষয় গুলোর উপরে নোটিশ লিখতে পারার দক্ষতা আমাদের থাকা উচিত।এছাড়াও গুরুত্ব ও ক্ষেত্র জানা থাকলে আমরা করনীয় সম্পর্কেও ধারনা পেতে পারি।

আমাদের সর্বশেষ আপডেট

Leave a Comment

Your email address will not be published.